যুক্তরাষ্ট্রে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে করোনা তৈরির ল্যাব!

সম্প্রতি চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লিজিয়ান ঝাও দাবি করেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের সেনা ছড়িয়েছে করোনা ভাইরাস। আর এবার চীনের বিশেষজ্ঞরা দল দাবি করলেন, করোনা ভাইরাস তৈরির কাজে ব্যবহৃত যুক্তরাষ্ট্রের ম্যারিল্যান্ডে অবস্থিত দ্য ফোর্ট ডেট্রিক ল্যাবরেটরি নামের একটি ল্যাব বন্ধ করে দিয়েছে মার্কিন সরকার । ল্যাবটি মার্কিন সেনাবাহিনী দ্বারা পরিচালিত হতো।

জানা গেছে, ২০১৯ সালের জুলাই মাসে যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার্স ফর ডিজিস কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন সেন্টার ওই ল্যাবটির কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়। ল্যাবটিতে বিভিন্ন ধরনের রোগ-জীবাণূ নিয়ে পরীক্ষা চালানো হতো।

তবে চীনের বিশেষজ্ঞদের এমন দাবি প্রত্যাখান করেছে যুক্তরাষ্ট্রের দ্য সেন্টার্স ফর ডিজিস কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন। সংস্থাটির পক্ষ থেকে বলা হয়,

অপরিশোধিত পানির পর্যাপ্ত নিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় তখন ল্যাবটি বন্ধ করে দেয়া হয়।

এদিকে এই বিষয়টি নিয়ে অনলাইনে একটি পিটিশন চালু করেছে চীনের সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস। তারা করোনা ভাইরাস নিয়ে সত্য উন্মোচন করার জন্য মার্কিন সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। এদিকে চীনের আরেক সংবাদমাধ্যম শিনহুয়াও তাদের প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে দাবি করে করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি চীনে নয়। জাপানের সংবাদ মাধ্যম আসাহিও দাবি করেছে , মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেই প্রথম করোনাভাইরাসের উৎপত্তি হয়।

 

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *