করোনা: কীটের সংকটে পরতে পারে তুরস্ক

গেল সপ্তাহের কথা। তুরস্ক পাঁচ লাখ করোনাভাইরাসের কিট যুক্তরাষ্ট্রকে দেয়। কিন্তু এখন নিজেরাই সংকটে পড়তে যাচ্ছে। এ নিয়ে দেশটির স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সামনের দিনে পর্যাপ্ত কিট লাগতে পারে, তখন প্রয়োজনীয় কিট না পেলে যুক্তরাষ্ট্রকে কিট দেওয়ার ঘটনা ‘ক্ষমার অযোগ্য’ ভুল হিসেবে বিবেচিত হবে।

দুই সপ্তাহে আগে তুরস্কে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। ওয়ার্ল্ডোমিটারের সর্বশেষ তথ্যমতে, দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৪৩৩ জন। এর মধ্যে মারা গেছে ৫৯ জন।

আসছে দিনগুলোতে দেশটিতে আরো করোনা রোগী শনাক্ত হতে পারে বলে মনে করছেন দেশটির কর্মকর্তারা।

তার্কিশ মেডিকস অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান সিনান আদিয়ামান বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, ‘করোনার প্রাদুর্ভাব শুরুর পর থেকে অন্তত দুই লাখ লোক বিভিন্ন দেশ থেকে তুরস্কে প্রবেশ করেছেন। কিন্তু তাদের শুধু জ্বর পরীক্ষা করেই ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এইভাবে মহামারি মোকাবেলা করা যায় না।’

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় তুরস্ক ৫ হাজার লোকের করোনা পরীক্ষা করেছে। এ পর্যন্ত সর্বমোট পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৩ হাজার লোকের। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে আঙ্কারা চীনের কাছে কিট কেনার প্রস্তাব পাঠিয়েছে।

তবে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোয়ান বলেছেন, আগামী দুই থেকে তিন সপ্তাহের মধ্যে তার দেশ করোনার প্রাদুর্ভাব থেকে মুক্ত হতে পারবে।

করোনোভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে তুরস্ক স্কুল, ক্যাফে ও বার বন্ধ ঘোষণা করেছে। জামাতে নামাজ, খেলাধুলা ও ফ্লাইট স্থগিত করেছে।

 

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *