করোনায় করণীয় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরামর্শ

মসজিদে নামাজ আদায় ও মুসল্লিদের সুরক্ষা বজায় রাখা এবং করোনাভাইরাস রোগীদের দাফনের বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।

সাধারণ মানুষ, ইমাম, খতিব ও মসজিদ কমিটির জন্য এসব নির্দেশনা দিতে দেশের শীর্ষস্থানীয় আলেম-ওলামারা রবিবার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের আগারগাঁও কার্যালয়ে এক জরুরি বৈঠকে বসেন বলে সোমবার (৩০ মার্চ) সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

যাদের শরীরে করোনাভাইরাসের লক্ষণ রয়েছে, যারা অসুস্থ, বৃদ্ধ বা যারা আক্রান্ত দেশ ও অঞ্চল থেকে এসেছেন তাদের মসজিদে না এসে বাসায় নামাজ পড়ার পরামর্শ দিয়েছে ফাউন্ডেশন।

সেইসাথে জানিয়েছে যে মসজিদে নিয়মিত আজান, ইকামত, জামাত ও জুমার নামাজ অব্যাহত থাকবে। তবে জুমা ও জামাতে মুসল্লিদের অংশগ্রহণ সীমিত থাকবে।

সব খতিব, ইমাম, মুয়াজ্জিন ও মসজিদ কমিটিকে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের পূর্বে সম্পূর্ণ মসজিদ জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা এবং কার্পেট ও কাপড় সরিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে।

হাদিসের বর্ণনা অনুযায়ী মহামারিতে মৃত মুমিন ব্যক্তি শহীদের মর্যাদা লাভ করেন জানিয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বলে, করোনায় মৃত ব্যক্তির কাফন, জানাজা ও দাফন যথাযথ মর্যাদার সাথে করা জরুরি। করোনায় মৃত ব্যক্তির দাফনে সহযোগিতা করুন। তাদের প্রতি বিরূপ মনোভাব প্রকাশ বা কোনোরূপ অসহযোগিতা করা শরিয়তবিরোধী ও অমানবিক।

সংকটকালে দুস্থ ও অসহায়দের বেশি বেশি দান-সদকা করতে এবং নিম্ন আয়ের মানুষের কাছে খাদ্যপণ্য পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করতে আহ্বান জানায় ফাউন্ডেশন।

সংস্থাটির মতে, গুজব মানুষের জন্য মারাত্মক ক্ষতির কারণ হতে পারে। তাই গুজব সৃষ্টি করা বা গুজবে বিশ্বাস করা পুরোপুরি বর্জন করতে হবে।

এসব নির্দেশনা প্রচার ও বাস্তবায়ন করতে দেশের সব মসজিদের খতিব, ইমাম, মসজিদ কমিটি, গণমাধ্যম, জনপ্রতিনিধি, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বিভাগ, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কর্মীসহ সব শ্রেণি-পেশার মানুষের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

দেশে করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯-এ আরেকজন আক্রান্ত হয়েছেন বলে সোমবার জানানো হয়েছে। যার ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৪৯ জনে। তাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত পাঁচজন মারা গেছেন।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *