করোনায় দক্ষিণ কোরিয়ার সাফল্য, সাহায্য চাইছে ১২১ দেশ

দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণের জন্য সহায়তা চেয়েছে বিশ্বের ১২১ দেশ। বুধবার, দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, ভাইরাসটির বিস্তার ঠেকাতে নাস্তানাবুদ হয়ে সিউলের দ্বারস্থ হচ্ছেন বিভিন্ন দেশের কর্মকর্তারা।

করোনা ঠেকাতে দক্ষিণ কোরিয়া ব্যাপক আকারে স্বাস্থ্য পরীক্ষা চালিয়েছে। আক্রান্তদের শনাক্তের পর প্রযুক্তির সহায়তায় নিবিড়ভাবে প্রত্যেককে পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে। আক্রান্তের সংস্পর্শে আসাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও কোয়ারেন্টিনে রাখার কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এর ফলেই করোনা সংক্রমণ ঠেকানো গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা শুরু থেকেই করোনা ঠেকাতে সফল হয়েছি। আমাদের অভিজ্ঞতা তৈরি হয়েছে। এজন্যই বিভিন্ন দেশ আমাদের কাছে সহায়তা চাইছে। ইতিমধ্যে ১২১টি দেশ সহায়তা চেয়েছে।’

মানবতার স্বার্থে টেস্ট কিটসহ অন্যান্য জরুরি মেডিকেল সামগ্রী বিভিন্ন দেশে পাঠাতে দক্ষিণ কোরিয়া একটি টাস্কফোর্স গঠন করেছে। যুক্তরাষ্ট্র, ইতালিসহ কয়েকটি দেশে টেস্ট কিট পাঠানোর চুক্তি হয়েছে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

কিট সরবরাহের জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার বায়োটেক সংস্থাগুলো পুরোদমে উৎপাদন চালাচ্ছে। শীর্ষস্থানীয় কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বছরের শুরু থেকে প্রায় তিনগুণ বেড়েছে।

দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৯ হাজার ৮৮৭ জনের মধ্যে প্রায় ৫৭ শতাংশ সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১৬৫ জন।

সহজলভ্য টেস্ট কিট, সবখানে পরীক্ষার অত্যাধুনিক সুযোগ, প্রযুক্তি ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (আর্টিফিশিয়াল ইন্টিলিজেন্স) ব্যবহার করে দক্ষিণ কোরিয়া করোনা মোকাবিলায় দৃষ্টান্ত তৈরি করেছে। করোনা প্রতিরোধের কোরিয়ান মডেলের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

রয়টার্স

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *