সেইসব মাদ্রাসা ছাত্রকে জাতীয় বীর ঘোষণার দাবি- সাইমুম সাদি।

অদৃশ্য মরণ ভাইরাসের আঘাত থেকে মুক্তি পেতে যখন উন্নত বিশ্ব হিমসিম খাচ্ছে ঠিক এই কঠিন মুহূর্তে বাংলাদেশের কওমি মাদরাসার বীর সেনানিনারা নিজের জীবন কে বাজি রেখে আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টির জন্য এগিয়ে আসছে মরণ ব্যধি ভাইরাস করোনায় মৃত ব্যাক্তিদের দাফন কাফনের ব্যবস্থা করার জন্য, সেই সব বীরদের জানাই হাজার সালাম।

সাইমুম সাদিঃ  আমাদের দেশে খাটের তলায় বসে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বয়ান শুনি প্রায়ই। যারা যুদ্ধের সময় বিদেশে বসে বারে মদ খেতেন, ড্যান্স করতেন তারাও মুক্তিযুদ্ধের কাহিনী শোনান।

বাংলাদেশের কওমি মাদরাসার বীর সেনানিনারা
বাংলাদেশের কওমি মাদরাসার বীর সেনানিনারা

এই ছবিতে কিছু মাদ্রাসা ছাত্রকে দেখা যাচ্ছে করোনায় মৃত একজন মানুষের দাফন করতে, কফিন বয়ে আনতে শারিরীক পরিশ্রম করছেন। ক্লান্ত হয়ে বসে পানি খাচ্ছেন।

যখন ইটালি ফেরত প্রবাসীর বউ পালিয়ে বাপের বাড়ি চলে যায়, করোনা হাসপাতাল বানাতে মানুষ বাধা দেয়, মৃত ব্যাক্তির দাফন কাফনে ভয়ে কেউ শরীক হয়না – সেই সময় কিছু মাদ্রাসা ছাত্র দাউদকান্দিতে করোনায় মৃত ব্যাক্তির গোসল ও জানাযার দায়িত্ব নেন। কবরেও নিজের হাতে লাশ নামিয়ে রাখেন।

আমরা সেইসব মাদ্রাসা ছাত্রকে জাতীয় বীর হিসেবে ঘোষণা দেয়ার জন্য দাবি জানাচ্ছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

সাইমুম সাদী

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *