শাইখুল হাদিস মুফতি আব্দুল্লাহ বিক্রমপুরী ইন্তেকাল করেছেন إنا لله وإنا إليه راجعون এই বরেণ্য আলেমে দ্বীনের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন- ইসলামি ঐক্যজোট মহাসচিব মুফতি ফয়যুল্লাহ,সবার খবর সম্পাদক আঃ গাফফার, রুহামা ফাউন্ডেশন মুন্সিগঞ্জের আলেম উলামাগণ।

শাইখুল হাদিস মুফতি আব্দুল্লাহ বিক্রমপুরী ইন্তেকাল করেছেন إنا لله وإنا إليه راجعون এই বরেণ্য আলেমে দ্বীনের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন- ইসলামি ঐক্যজোট মহাসচিব মুফতি ফয়যুল্লাহ,সবার খবর সম্পাদক আঃ গাফফার, রুহামা ফাউন্ডেশন মুন্সিগঞ্জের আলেম উলামাগণ।

প্রতিবেদন ইসলামি ঐক্যজোট মহাসচিব মুফতি ফয়যুল্লাহঃ  বিখ্যাত আলেমে দ্বীন, মুফতী ড, আবদুল্লাহ বিক্রমপুরী সাহেব রহ, আজ (৮ এপ্রিল) বুধবার, বাদ মাগরিব ইন্তিকাল করেছেন। إنا لله وإنا إليه راجعون

মুস্তফা গঞ্জ মাদ্রাসার সাবেক মুহতামিম, বিভিন্ন মাদ্রাসার শায়খুল হাদীস,সেন্ট্রাল শরীয়াহ বোর্ড ফর ইসলামিক ব্যাংকস অব বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান মুফতী আবদুল্লাহ বিক্রমপুরী সাহেব রহ, একজন হক্কানী,বুযুযূর্গ আলেম এবং প্রচার বিমুখ ব্যক্তিত্ব ছিলেন। তাঁর ইন্তেকালে দেশ একজন প্রতিথযশা মুফতী ও মুহাদ্দিস হারাল। হযরতের ইন্তিকালে উলামা মাশায়েখ ও দেশের বড় ক্ষতি হয়ে গেল।

আমি হযরত মুফতী সাহেব রহ’র বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবন এবং নিষ্ঠাপুর্ন, আন্তরিকতাপুর্ন ঈমানী তৎপরতা গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি। স্বরণ করছি,ইসলামী অর্থব্যবস্থা বিকাশে তাঁর অবিস্মরণীয় ভূমিকার কথা। তিনি মুজাহিদে মিল্লাত মুফতী আমিনী রহ,’র ঘনিষ্ঠ ছিলেন, শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী সাহেব দা,বা,’র কাছের ছিলেন। কিছুদিন আগে তাঁরই দাওয়াতে ঢাকা, ইসলাম পুরে মেহমান হয়েছিলাম। এরপর তিনিও আমাদের মারকাজুল কুরআন মাদ্রাসায় মেহমান হয়েছিলেন। তাঁর সাথে প্রায় ২০/২১ বছরের আন্তরিকতাপুর্ণ সম্পর্কের কথা অনেক বেশী মনে পড়ছে। তিনি সব সময় আমাকে অনুপ্রাণিত করতেন। সাহস যোগাতেন। তিনি আমার হৃদয়ে ভাস্বর হয়ে থাকবেন আমরণ।

জানিনা মহান আল্লাহর ফায়সালা। চট্টগ্রামে এসেছিলাম জানাযায় শরীক হতে। তখন থেকেই চট্টগ্রামে। জানি না ফেরা হবে কি না? মহান আল্লাহই একমাত্র ভরসাস্থল। তার উপরই চুড়ান্ত ভরসা। আল্লাহ ক্ষমাকারীকে ভাল বাসেন। ক্ষমা করবেন সবাই।

মুখলিস, এই আলেম, শায়খুল হাদীস ও ইসলামী অর্থনিতিবীদের ইন্তেকালে আমি গভীর ভাবে শোকাহত। আমি তাঁর মাগফিরাত কামনা করছি এবং শোকসন্তপ্ত পরিবার, আত্মীয়,স্বজন, তাঁর মুরীদ, ছাত্র এবং সহকর্মী ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমাবেদনা জানাচ্ছি।

দেশবরেন্য বিখ্যাত আলেম মরহুম , মুফতী ড, আবদুল্লাহ বিক্রমপুরী সাহেব (রাহ.)এর মাগফিরাত জন্য আমরা মহান আল্লাহর শাহী দরবারে মুনাজাত করছি, আল্লাহ! আপনি আপনার এই প্রিয় মুখলিস, শায়খুল হাদীস, আলেম বান্দাহকে আপনার রহমতের চাদরে আবৃত করে চিরস্থায়ী জান্নাতের মেহমান করে নিন। আমীন।

প্রতিবেদন সবার খবর সম্পাদক আঃ গাফফারঃ স্বাধীন বাংলাদেশে একজন আলেমের হাত ধরে নিবন্ধিত একটি দৈনিক প্রকাশ হয়েছিল এবং বেশ কিছুদিন তার প্রকাশনা অব্যাহত ছিল তা ছিল ‘দৈনিক ফারাহাত’। আমাদের শৈশবে সাদা কাগজে পত্রিকাটি নিয়মিত প্রকাশ পেত।

আমরা বিকালবেলা দৈনিক ইনকিলাবের পাশাপাশি রাস্তায় সাঁটানো এ দৈনিকটি পড়তাম। পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন শায়খুল হাদিস আল্লামা আব্দুল্লাহ বিক্রমপুরী। স্বাধীনতা-পূর্ব মাওলানা আকরাম খাঁ সম্পাদিত ‘দৈনিক আজাদ’, নেজামে ইসলামের ‘দৈনিক নাজাত’ এবং স্বাধীনতা পরবর্তী খেলাফত আন্দোলনের ‘দৈনিক খেলাফত’ আল্লামা আব্দুল্লাহ বিক্রমপুরী সম্পাদিত ‘দৈনিক ফারাহাত’ মাওলানা আব্দুল লতিফ নেজামী সম্পাদিত ‘দৈনিক সরকার’ নামক পত্রিকাগুলো আলেমদের হাত ধরে এসেছে।
সেই ‘দৈনিক ফারাহাত’ সম্পাদক, বিদগ্ধ আলেম
মুন্সীগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী মোস্তফাগঞ্জ ও ঢাকার গেন্ডারিয়ার জামালুল কোরআন মাদরাসার সাবেক শায়খুল হাদিস, তাঁতি বাজার শাহী মসজিদের দীর্ঘকালীন খতিব, সেন্ট্রাল শরীয়াহ বোর্ড ফর ইসলামিক ব্যাংকস অব বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান আল্লামা ড. মুফতী আব্দুল্লাহ বিক্রমপুরী আজ বাদ মাগরিব ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহ ওয়া ইন্নালিল্লাহ ইলাহি রাজিউন।
খুব কাছ থেকে দেখার সুযোগ হয়েছে তাকে। সংগ্রামী ছিলেন। মুফতি আমিনী রহ.এর সাথে ইসলামী আইন বাস্তবায়ন কমিটির ব্যানারে আন্দোলন করেছেন। পরবর্তীতে মধুপুর পীর সাহেবের সাথে খতমে নবুওয়াত সংরক্ষণ কমিটির ব্যানারে খতমে নবুওয়াতের আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন । মিডিয়া নিয়ে তার খুব স্বপ্ন ছিল। আমি যখন মুক্ত আওয়াজে কাজ করেছি তখন তিনি পত্রিকাটি নিয়মিত পড়তেন। পরবর্তীতে পাক্ষিক সবার খবর নিয়মিত পড়তেন। তার একটি দীর্ঘ সাক্ষাৎকার এর কথা ছিল। কিন্তু তিনি চলে গেলেন। আল্লাহ তাকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসিব করুন।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *