নতুন আক্রান্ত ১১২ জন সম্পর্কে যা বললেন সেব্রিনা ফ্লোরা

ঢাকা, ০৯ এপ্রিল – দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় ১১২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। নতুন আক্রান্তদের পুরুষের সংখ্যা বেশি এবং বেশি আক্রান্ত ঢাকায় বলে জানিয়েছেন আইইডিসিআরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

আজ বৃহস্পবার দুপুর আড়াইটায় মহাখালী থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে বিষয়টি জানান তিনি।

মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, ‘স্বাস্থমন্ত্রী জাহিদ মালেক, এমপি আপনাদেরকে অবগত করেছেন যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন সংক্রমণ হয়েছে ১১২ জনের। এই ১১২ জনের বিশ্লেষণ আমি আপনাদের সামনে তুলে ধরব। ১১২ জনের মধ্যে পুরুষের সংখ্যা ৭০ এবং মহিলার সংখ্যা ৪২ জন। আর আক্রান্তদের মধ্যে পুরুষের হার আমরা দেখতে পাচ্ছি দুই তৃতীয়াংশের মতো।’

তিনি বলেন, ‘বয়সের বিশ্লেষণে আমরা দেখেছি , এই ১১২ জন রোগীর মধ্যে ১০ বছরের নিচে আছে তিনজন। ১১-২০ বছরের মধ্যে রয়েছেন ৯ জন। ২১-৩০ বছরের মধ্যে ২৫ জন। ৩১-৪০ বছরের মধ্যে ২৪ জন। ৪১-৫০ বছরের মধ্যে রয়েছেন ১৭ জন। ৫১-৬০ বছরের মধ্যে রয়েছেন ২৩ জন এবং ষাটোর্ধ্ব রয়েছেন ১১ জন।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা যদি জেলা পর্যায়ে বা স্থান বিশেষে দেখি- আমি সব জায়গার নাম সব সময় উল্লেখ করিনি। এটা নিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি হয়। সেজন্য আজ একটু উল্লেখ করে দিচ্ছি। শুধু যেখানে বেশি সেই সংখ্যাটা বলি-বিস্তারিত তথ্য ওয়েবসাইটে থাকে। আমরা দেখেছি গত ২৪ ঘণ্টায় যত সংক্রমিত হয়েছে, যত রোগী পাওয়া গেছে তার বেশির ভাগ ঢাকা শহরের। ঢাকা শহরে রয়েছেন মোট ৬২ জন। আর বাকিটা সারা বাংলাদেশের, এর মধ্যে ১৩ জন হচ্ছেন নারায়ণগঞ্জের।’

এ সময় নারায়ণগঞ্জে করোনা সংক্রমণ নিয়ে আইইডিডিসিআরের এই পরিচালক বলেন, ‘আমরা ইতিমধ্যেই বলেছি, নারায়ণগঞ্জকে হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত করেছি। নারায়ণগঞ্জে আমরা বিশেষ পদক্ষেপ নিয়ে কাজ করছি। নারায়ণগঞ্জকে একেবারেই আমাদের এখান থেকে আলাদা করা হয়েছে। আমরা বিভিন্ন জেলায় রোগী পাচ্ছি এবং দেখেছি যে তারা অনেকেই নারায়ণগঞ্জ থেকে গেছেন।’

 

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *