২৭৮ পোশাক কারখানা বেতন দিল শ্রমিকদের

বিজিএমইএ সদস্যভুক্ত ২৭৮টি পোশাক কারখানা তাদের শ্রমিকদের মার্চ মাসের বেতন পরিশোধ করেছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ তথ্য জানিয়েছে বিজিএমইএ।

 

বিজিএমইএ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (০৯ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত বিজিএমইএ সদস্যভুক্ত ২৭৮টি কারখানা মালিক মার্চ মাসের বেতন পরিশোধ করেছেন।

 

এর আগে গত ৬ এপ্রিল বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক এবং বিকেএমইএ সভাপতি সেলিম ওসমানের সই করা যৌথ এক ঘোষণায় আগামী ১৬ এপ্রিলের মধ্যে মার্চ মাসের বেতন পরিশোধের সদস্যদের প্রতি অনুরোধ জানান।

 

এছাড়া করোনা ভাইরাসের কারণে শ্রমিকদের সুরক্ষায় আগামী ১৪ই এপ্রিল পর্যন্ত কারখানা বন্ধ রাখতে সদস্যদের প্রতি একইভাবে অনুরোধ জানানো হয় পোশাক মালিকের এই দুই সংগঠনের পক্ষ থেকে। এ বিষয়ে সদস্যদের চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে জানানো হয়।

 

সোমবার (০৬ এপ্রিল) গণমাধ্যমে পাঠানো বিজিএমইএ’র এক বার্তায় বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সদস্যভুক্ত কারখানাগুলোকে আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত তাদের কারখানা বন্ধ রাখতে বিজিএমইএ অনুরোধ অব্যাহত রয়েছে। একইসঙ্গে বিজিএমইএ’র সব সদস্য প্রতিষ্ঠানকে যত দ্রুত সম্ভব মার্চ মাসের বেতন শ্রমিকদের দেওয়ার কথাও বলা হয়। এ বিষয়ে সদস্যদের সহায়তায় বিজিএমইএ দপ্তরে ইতোমধ্যে একটি সেল খোলা হয়েছে। পরিস্থিতির উন্নতি হওয়াশ এ নিয়ে তিন ধাপে কারখানা বন্ধ রাখার আহ্বান জানালো বিজিএমইএ।

এর আগে গত ২৭ মার্চ থেকে শনিবার (০৪ এপ্রিল) পর্যন্ত বন্ধ রাখার আহ্বান জানানো হয়। রোববার (০৫ এপ্রিল) থেকে আবারও কারখানা খোলা হলে নানা মহলে সমালোচনা উঠে। পরে রোববার দিনগত রাতে বিজিএমইএ সভাপতি এক বার্তায় আগামী ১১ এপ্রিল পর্যন্ত কারখানা বন্ধ রাখতে সদস্যদের প্রতি অনুরোধ জানান। তবে সরকারের সাধারণ ছুটির মেয়াদ বৃদ্ধি আর পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সোমবার (০৬ এপ্রিল) আবারও এক বার্তায় আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত কারখানা বন্ধ রাখতে সদস্যদের প্রতি অনুরোধ জানান বিজিএমইএ সভাপতি ড. রুবানা হক।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *