মাদারীপুর জেলা লকডাউন ১০ টার পর থেকে

মাদারীপুরের শিবচর, রাজৈর ও কালকিনি উপজেলা লকডাউনের পর এবার মাদারীপুর পুরো জেলা লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এক জরুরি সভা শেষে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

আজ রাত ১০টার পর থেকে কার্যকর হবে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত এই লকডাউন বলবৎ থাকবে বলেও গণবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

তবে আওতামুক্ত থাকবে জরুরি সেবা। ওষুধের ফার্মেসি ছাড়া প্রতিদিন দুপুর ১২টার পর নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দোকানও বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

জরুরি সভায় সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা, সরকারের গোয়েন্দা সংস্থা, সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ায় এর আগে গত ১৯ মার্চ শিবচর উপজেলায় ঘোষণা করা হয় লকডাউন। পরে ১৩ এপ্রিল লকডাউন ঘোষণা করা হয় কালকিনি ও রাজৈর উপজেলা। এ থেকেই  তিনটি উপজেলায় বন্ধ রাখা হয় সব ধরনের গণপরিবহন ও জনসমাগম। একই সঙ্গে প্রবেশ ও বাহির পথ আটকিয়ে দেয়া হয়েছে। করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্ত হওয়ায় জনমনে বিরাজ করছে আতঙ্ক। পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয় লকডাউনের সিদ্ধান্ত।

 

মাদারীপুর জেলায় করোনাভাইরাসে মোট ২৩ জন আক্রান্তের খবর জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক ও জেলা করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ওয়াহিদুল ইসলাম। এর মধ্যে শিবচর উপজেলায় ১৫ জন, সদরের সংখ্যা ৫, কালকিনি ১ জন আক্রান্ত হয়েছেন এবং রাজৈর উপজেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ জন। প্রতিনিয়ত এই আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় কঠোর অবস্থানে প্রশাসন। অপ্রয়োজনে ঘর থেকে বের হলেই জেল-জরিমানার সিদ্ধান্তও নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি এ রোগের উপসর্গ দেখা দিলে আতঙ্কিত না হয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *