নিলামে ৫ লাখ ৫৫ টাকা বিক্রী হলো রেফারি তৈয়ব হাসান বাবুর জার্সি

সকালে নিলামে দাম উঠেছিল ২ লাখ টাকা।কিনতে চেয়েছিলেন সাতক্ষীরার ব্যাবসয়ী তানজিম। বিকেল ঘুরতেই জার্সিটির দাম উঠলো ৫ লাখ ৫৫ হাজার টাকা।এই ব্যাক্তিটিও সাতক্ষীরার প্রতিষ্টিত একজন ব্যবসায়ী। করোনাভাইরাসের ক্ষতিগ্রস্থদের সাহায্যের জন্য যে ঐতিহাসিক জার্সিটি নিলামে ওঠানোর ঘোষণা দিয়েছেন সাবেক ফিফা রেফারি তৈয়ব হাসান বাবু  তারই এখন পর্যন্ত দাম উঠেছে ৫ লাখ ৫৫ হাজার টাকা। সাতক্ষীরা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি নাছিম ফারুক খান মিঠু এই মূল্যে জার্সিটি ক্রয়ের আগ্রহের কথা জানিয়েছেন রেফারি তৈয়ব হাসান বাবুকে।

 

বিকেলে সাতক্ষীরা থেকে সাবেক এ ফিফা রেফারি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ‘আমি জার্সিটি নিলামে ওঠানোর ঘোষণা দেয়ার পরই ফোনে নাছিম ফারুক খান মিঠু ক্রয়ের আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। আজ (রোববার) দুপুরে তার ছেলে এসে আমার সাথে দেখা করে বলে গিয়েছেন ৫ লাখ ৫৫ হাজার টাকায় জার্সিটি তারা কিনবে।

 

এর আগে শেখ তানজিম কালাম তমাল নামের সাতক্ষীরার এক তরুণ ব্যবসায়ী জার্সিটি ২ লাখ টাকায় কেনার ঘোষণা দিয়েছিলেন। যা ছিল জার্সিটির নিলামের ভিত্তিমূল্য।

 

তৈয়ব হাসান বাবু বলেন, ‘এখন নিলামে কেউ এর চেয়ে বেশি দামে জার্সিটি কেনার ঘোষণা দিতে পারে। কবে জার্সিটি নিলামে ওঠাবো তা ঠিক হয়নি। অকশন ফর অ্যাকশন- নামের একটি প্রতিষ্ঠান আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। এখনো চূড়ান্ত কিছু হয়নি।’

 

সাবেক এ রেফারি নিলামে দিচ্ছেন ২০১৩ সালে নেপালের কাঠমান্ডুতে অনুষ্ঠিত সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল পরিচালনা করা জার্সিটি। ভারত ও আফগানিস্তানের মধ্যকার ফাইনাল ম্যাচটিতে বাঁশি বাজিয়েছিলেন তিনি।

 

বাংলাদেশের তৈয়ব হাসান বাবুই দক্ষিণ এশিয়ার একমাত্র রেফারি যিনি সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ম্যাচ পরিচালনা করেছেন।

 

তিনি ওই ফাইনালের জার্সিটি নিলামে তুলতে চান। এ জার্সি বিক্রি করে পাওয়া অর্থ করোনা ক্ষতিগ্রস্থদের সহায়তায় প্রদান করবেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের রেফারিদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আন্তর্জাতিক ম্যাচ পরিচালনাকারী সাতক্ষীরার এ রেফারি।

 

ঘরোয়া ফুটবলে দীর্ঘদিন বাঁশি বাজানোর পাশাপাশি তৈয়ব হাসান বাবু বহু আন্তর্জাতিক ম্যাচ সুনাম ও দক্ষতার সঙ্গে পরিচালনা করেছেন। বিশ্বকাপ বাছাই, অলিম্পিক বাছাইসহ অনেক আন্তর্জাতিক ম্যাচ পরিচালনা করে বিশ্ব ফুটবলে বাংলাদেশের সুনাম বৃদ্ধি করেছেন সাতক্ষীরার এ রেফারি।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *