ভারতের আসামে সেচের পানি প্রবাহ বন্ধ করার খবরকে ‘ভিত্তিহীন’ বলেছে ভুটান।

ভারতের আসামে সেচের পানি প্রবাহ বন্ধ করার খবরকে ‘ভিত্তিহীন’ বলেছে ভুটান। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ভুটান ও আসামের বন্ধুত্বপূর্ণ সহাবস্থানে ফাটল ধরানোর চেষ্টায় কেউ ‘অসত্য তথ্য’ ছড়াচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে ভুটান।

 

গত দুই দিনে ‘আসামে সেচের চ্যানেল দিয়ে আসা পানি প্রবাহ বন্ধ করে দিয়েছে ভুটান’- এমন একটি খবর ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। ভুটান সরকারের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে আসামের কয়েক’শ কৃষক বিক্ষোভ করেন বলেও খবরে জানানো হয়েছে।

 

শুক্রবার, ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, আসামে সেচের পানি বন্ধের ওই সংবাদ প্রতিবেদনগুলো নিয়ে বিবৃতি দিয়েছে ভুটানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

 

বিবৃতিতে বলা হয়, গত ২৪ জুন থেকে ভারতীয় একাধিক সংবাদমাধ্যমে আসামের কৃষকদের সেচের পানি আটকে দেওয়ার খবর প্রকাশিত হয়েছে। বলা হয়েছে, বাকসা ও উদালগুড়ির কৃষকেরা এ নিয়ে সমস্যায় পড়েছেন। এটি অত্যন্ত ভয়াবহ অভিযোগ। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স্পষ্ট করে বলতে চায় যে, এই ধরনের সংবাদ ভিত্তিহীন। আসামে সেচের পানি আটকে দেওয়ার মতো কোনো কারণ ভুটানের নেই।’

 

বিবৃতিতে ভুটান আরও জানায়, ‘বহুযুগ ধরে বাকসা আর উদালগুড়ি ভুটানের পানি পেয়ে সমৃদ্ধ। আগামীতেও তারা পানি পাবে। এমনকি, এই করোনা সংকটের মধ্যেও তারা পানি পেয়েছে।’

 

এদিকে, বৃহস্পতিবার রাতে আসামের মুখ্যসচিব কুমার সঞ্জয় ওই প্রতিবেদনের কথা উল্লেখ করে টুইটে বলেন, ‘এই প্রতিবেদন অসত্য। প্রাকৃতিক কারণে পানি প্রবাহ বন্ধ হয়েছে।’

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *