আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমীর জানাজা সম্পন্ন

ডেস্ক রিপোর্ট দ্যা ভয়েস অফ ঢাকাঃ হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা  নূর হোসাইন কাসেমীর জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। তাঁর ছোট ছেলে মুফতি জাবের কাসেমীর ইমামতিতে আজ সোমবার সকাল ৯টা ২০ মিনিটে বায়তুল মোকাররমে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমীর জানাজায় অংশ নিতে মানুষের ঢল নামে। ভোরেই লোকে লোকারণ্য হয়ে যায় বায়তুল মোকাররম এলাকা। ফজরের নামাজে অংশ নেন বিপুলসংখ্যক মুসল্লি।

জানাজার আগে সংক্ষিপ্ত বয়ান করেছেন মুফতি  কাসেমীর হাতে গড়া প্রতিষ্ঠান ঢাকা জামিয়া মাদানীয়া বারিধারার ভারপ্রাপ্ত মুহতামিম মাওলানা নাজমুল হাসান, তাঁর দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল্লামা জিয়াউদ্দিন, হেফাজতে ইসলামের  আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, কওমি শিক্ষা বোর্ড বেফাক ও আল-হাইআর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল্লামা মাহমুদুল হাসান এবং তাঁর ছোট ভাই মাওলানা আবদুল কুদ্দুস। তাঁরা আল্লামা নূর হুসাইন কাসেমীর জীবনের নানা দিক নিয়ে কথা বলেন।

ঢাকার আশুলিয়া বেড়িবাঁধসংলগ্ন ধউর গ্রামে অবস্থিত আল্লামা কাসেমির প্রতিষ্ঠিত জামিয়া সুবহানিয়া মাদ্রাসায়  মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমীকে দাফন করা হবে।

রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জমিয়তের মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী মারা যান। ঠান্ডা ও শ্বাসকষ্টজনিত জটিলতা হওয়ায় ১লা  ডিসেম্বর মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমীকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে তাঁর শারীরিক অবস্থা বেশ খারাপ ছিল। শুক্রবার বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তাঁর শারীরিক অবস্থা আরও খারাপ হতে শুরু করে। শুক্রবার রাত আটটার দিকে তাঁর শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কমে গেলে তাঁকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেওয়া হয়। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ সন্দেহে তাঁর নমুনা পরীক্ষা করা হয়। ফল নেগেটিভ আসে।

হেফাজতে ইসলাম প্রতিষ্ঠার পর থেকে আল্লামা  নূর হোসাইন কাসেমী সংগঠনটির ঢাকা মহানগরের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। নতুন কমিটিতে তিনি মহাসচিব হিসেবে নির্বাচিত হন। তিনি ঢাকা জামিয়া মাদানীয়া বারিধারা এই আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *