ভারতে নাগরিকত্ব আইন সংশোধনে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান কল্যাণ ফ্রন্টের উদ্বেগ

ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল-২০১৯ নিয়ে শঙ্কা ও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান কল্যাণ ফ্রন্ট।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংগঠনটির এক সংবাদ সম্মেলনে এ উদ্বেগের কথা জানানো হয়।

নেতারা বলেন, এই আইনের বিরুদ্ধে ভারতে যারা গণতান্ত্রিক আন্দোলন করছেন তাদের সমর্থন জানাচ্ছি। কেননা আইনটি কার্যকর হলে দুই দেশের মধ্যে একটি বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে। ভারতের এই আইনের খারাপ প্রভাব বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপরও পড়তে পারে। এ অবস্থায় ভারত ও বাংলাদেশ উভয় দেশের সরকারের উচিত এমন উদ্যোগ নেয়া যাতে উভয় দেশে হিন্দুদের নিরাপত্তা বিঘ্নিত না হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট গৌতম চক্রবর্তী।

উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী, বিজন কান্তি সরকার, ড. সুকোমল বড়ুয়া, তপন মজুমদার, জয়ন্ত কুমার কুণ্ডু, অমলেন্দু দাস অপু প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়েছে, ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধন আইনটি ধর্মীয় বিভাজনের ভিত্তিতে করায় উভয় দেশের সংখ্যালঘুরা আতঙ্কিত হবে। একই সঙ্গে দেশটিতে বসবাসরত নাগরিকত্বহীন সংখ্যালঘু মুসলিমদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করবে। স্বাভাবিকভাবে এ দেশে অনুপ্রবেশের প্রবণতা দেখা দেবে। যা ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে।

বাংলাদেশত্যাগী ভারতে অবস্থানরত হিন্দুদের লাভ হলেও এ দেশে বসবাসকারী হিন্দুদের লাভের সম্ভাবনা খুব কম। এই আইন সংশোধনের পর উভয় দেশের সংখ্যালঘুদের ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে।

ভারতে নাগরিকপঞ্জি বাস্তবায়নের ফলে এই অঞ্চলে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট হতে পারে। দেশটির জনগণ যখন ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে নাগরিকপঞ্জির বিরুদ্ধে সোচ্চার তখন আমরা উদ্বিগ্ন না হয়ে পারি না।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *