সমাজ-সংস্কারক ও দীনের দা‘ঈদের
অপরিহার্য কিছু বৈশিষ্ট্য থাকা চাই
::
দা’ঈকে অবশ্যই যুগ-চাহিদার প্রেক্ষিত ও উমূমে বালওয়াকে সামনে রেখেই পথ চলতে হবে। কারণ, আল্লাহ তা’আলা যুগ-চাহিদায় অনন্য ভুতপত্তি দিয়ে প্রেরণ করেছেন নবী ও রসূলগণের সুমহান ধারা। তাঁরা সকলেই ছিলেন স্ব-স্ব যুগের জ্ঞান-বিজ্ঞানের সু-উচ্চ মার্গে অধিষ্ঠিত।

সূরা আল-ইমরানের ১৪৯নং আয়াতের তাফসীর অবলম্বনে মুফতী শফী সাহেব রহঃ বলেন, নিম্নোল্লেখিত গুনাবলী বিদ্যমান থাকা একজন সমাজ সংস্কারক ও দীনের দাঈর জন্য অপরিহার্য ব্যাপার ৷ কারণ, রূঢ়তা ও কঠোরতা যখন, আল্লাহ তাআলা তাঁর প্রিয়তম রসূলের পক্ষ থেকেই সহ্য করেননি, তখন অন্য কেউ কী ভাবে কোন প্রকার কঠোরতা বা চারিত্রিক অনমনীয়তার মাধ্যমে মানুষকে দীনের প্রতি আকৃষ্ট করবে? কার সাধ্য আছে যে, সে রূঢ়তা ও কঠোরতার মাধ্যমে দীনের সংস্কারমূলক কাজ, শিক্ষা-দীক্ষা ও দীন প্রচারের কাজ সুচারুরূপে আঞ্জাম দিবে?
::
ধর্ম-প্রচারকের অপরিহার্য গুনাবলী
১, আচার-ব্যবহার ও কথা-বার্তায় রূঢ়তা
ও কর্কশতা পরিহার করা ৷
২, সাধারণ লোকদের দ্বারা কোন ভূলভ্রান্তি হয়ে গেলে কিংবা কষ্টদায়ক কোন বিষয় সংঘটিত হলে সেজন্য প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থা না নিয়ে বরং ক্ষমা প্রদর্শন করা এবং সদয় ব্যবহার করা ৷
৩, তাদের পদস্খলন ও ভূলভ্রান্তির কারণে তাদের কল্যাণ কামনা থেকে বিরত না থাকা ৷ তাদের জন্য দুআ প্রার্থনা করতে থাকা ৷ (মাআরিফুল কুরআন ২১৩)

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *