টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‍‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত হয়েছেন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি  বিদেশি পিস্তল, একটি এক নলা বন্দুক, ১১ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল বুধবার দিবাগত রাতে টেকনাফের শামলাপুর মেরিন ড্রাইভ সড়কে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে র‌্যাবের দাবি, বন্দুকযুদ্ধে তাদের তিন সদস্য আহত হয়েছেন।

নিহতরা হলেন- রোহিঙ্গা ডাকাত জকির গ্রুপের সেকেন্ড ইন কমান্ড সাইফুল ইসলাম সোহেল ওরফে ডিবি সাইফুল (৩৮) ও নুর কামাল প্রকাশ ওরফে সোনাইয়া (৩৪)। সোহেল রামুর পূর্ব উমখালীর আব্দুর শুক্কুরের ছেলে ও সোনাইয়া টেকনাফের হ্নীলার লেদা পশ্চিমপাড়ার নুর আহম্মদের ছেলে।

এ ব্যাপারে র‌্যাব-১৫ এর টেকনাফ ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মির্জা শাহেদ মাহতাব জানান, বেশকিছু দিন রোহিঙ্গা ডাকাত টেকনাফের নয়াপাড়া, শালবাগান ও জাদিমুরা রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন পাহাড়ি এলাকা এবং আশপাশের কিছু এলাকায় ডাকাতিসহ নানা অপকর্ম চালিয়ে আসছিল। রাতে সশস্ত্র ডাকাত দল মেরিন ড্রাইভ সড়কে জড়ো হয়েছে-এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল সেখানে গেলে ডাকাত দলের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। এ সময় আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব পাল্টা গুলি ছুড়ে। এক পর্যায়ে পরিস্থিতি শান্ত হলে ঘটনাস্থল থেকে দুজনের মরদেহ, অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরো জানান, নিহত দুজনই রোহিঙ্গা ডাকাত সর্দার জকির গ্রুপের সদস্য। নিহতদের মরদেহ টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। সেখান থেকে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *